top-ad
২৪শে এপ্রিল, ২০২৪, ১২ই বৈশাখ, ১৪৩১
banner
২৪শে এপ্রিল, ২০২৪
১২ই বৈশাখ, ১৪৩১

কোহলির নির্বাসন দাবি গাভাস্কারের

আইপিএল ম্যাচের সময় ভারতের সাবেক অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও অবসরপ্রাপ্ত ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীরের মধ্যে মাঠে যে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়েছে তা থামাতে জরিমানার শাস্তি দিলে হবে না বলে মনে করেন কিংবদন্তির ক্রিকেটার সুনীল গাভাস্কার। ভারতের এই সাবেক ক্রিকেটারের মতে, একমাত্র কয়েক ম্যাচ নির্বাসিত করলে তবেই ক্রিকেটারদের মধ্যে ভয় ঢুকবে।

সম্প্রচারকারী চ্যানেলে গাভাস্কার বলেছেন, ‘ওদের ম্যাচ ফি-র ১০০ শতাংশ কেটে নেয়া হয়েছে। মানে বিরাট যে টাকা পায় তাতে তার এক কোটি রুপির মতো জরিমানা হয়েছে। সেটা অবশ্য অনেক বড় জরিমানা। গম্ভীরের কত জরিমানা হয়েছে সেটা আমি জানি না। কিন্তু শুধু জরিমানা করে এই ঘটনা থামিয়ে রাখা যাবে না।’

গাভাস্কার মানেন যে মাঠে প্রতিযোগিতা চলাকালীন কোনো ঘটনায় মাথা গরম হতেই পারে। কিন্তু সেটা মাঠেই শেষ করে দেয়া উচিত বলে মনে করেন তিনি। খেলা শেষেও সেটা জিইয়ে রাখা উচিত নয়। কিন্তু কড়া শাস্তির ভয় না থাকায় ক্রিকেটাররা বার বার এই ভুল করছেন বলে মনে করেছেন তিনি। গাভাস্কার বলেছেন, ‘বিসিসিআইকে নিশ্চিত করতে হবে এই ঘটনা যেন আর না ঘটে। তার জন্য কড়া শাস্তি দিতে হবে। খেলায় প্রতিযোগিতা থাকুক। কিন্তু সেটা শুধু খেলার মধ্যেই থাকুক। এই ধরনের ঘটনা উঠতি ক্রিকেটারদের বিপথে পাঠাতে পারে।’

গাভাস্কারের মতে, একমাত্র নির্বাসনের শাস্তি দিলে তবেই ক্রিকেটাররা ঝামেলায় জড়াবেন না। তিনি বলেছেন, ‘হরভজন-শ্রীসন্থের ঘটনার পরে তো ওদের নির্বাসিত করা হয়েছিল। তা হলে এ ক্ষেত্রে কেন হবে না? নির্বাসনের শাস্তি দিলে যেমন ক্রিকেটাররাও সতর্ক হবে, তেমনই প্রতিটা দলও সজাগ থাকবে। বিসিসিআইকে কড়া পদক্ষেপ নিতেই হবে। নইলে এই ধরনের ঘটনা চলতেই থাকবে।’

উল্লেখ্য, লখনৌ সুপার জায়ান্টস এবং রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর ম্যাচে বাগ্‌যুদ্ধে জড়িয়ে পড়েছিলেন বিরাট কোহলি এবং গৌতম গম্ভীর। তাদের ঝগড়া নিয়ে উত্তাল আইপিএল। দু’জনকেই কড়া শাস্তি দিয়েছেন আইপিএল কর্তৃপক্ষ। ঠিক কী কথা হয়েছিল তাদের মধ্যে? জানিয়েছেন এক প্রত্যক্ষদর্শী।

খেলা শেষ হওয়ার পর কোহলির কাছে যান লখনৌর কাইল মেয়ার্স। কোহলি কেন তাদের সম্পর্কে খারাপ মন্তব্য করছেন জানতে চান। ওই সময় গম্ভীর এসে সরিয়ে নিয়ে যান মেয়ার্সকে। তার পরেই বাগ্‌যুদ্ধে জড়িয়ে পড়েন কোহলি ও গম্ভীর। ওই প্রত্যক্ষদর্শীর মতে ছোটদের মধ্যে ঝগড়া করেন দিল্লির দুই ক্রিকেটার।

গম্ভীর বলেন, ‘কী বলছিল বল।’ জবাবে কোহলি বলেন, ‘আমি আপনাকে কিছু বলিইনি। আপনি কেন শুধু শুধু এর মধ্যে ঢুকছেন।’ এর পর গম্ভীর বলেন, ‘তুই আমার কোনো খেলোয়াড়কে বলেছিস মানে তুই আমার পরিবারকে গালাগালি দিয়েছিস।’ এর জবাবে কোহলি বলেন, ‘তা হলে আপনি আপনার পরিবারকে সামলে রাখুন।’’ কোহলির উত্তর শুনে গম্ভীর আবার বলেন, ‘তা হলে এখন তুই আমাকে শেখাবি?’

এই ঝামেলার জন্য ম্যাচ ফি-র পুরোটাই জরিমানা করা হয়েছে কোহলির। একই শাস্তি পেতে হয়েছে গম্ভীরকেও। তুলনায় শাস্তি কম হয়েছে আফগান ক্রিকেটার নবীন উল হকের। তিনিও ঝামেলায় জড়িয়ে পড়েছিলেন। তার ম্যাচ ফি-র ৫০ শতাংশ কেটে নেয়া হয়েছে।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

আরো খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

জনপ্রিয় খবর