top-ad
১৯শে জুলাই, ২০২৪, ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১
banner
১৯শে জুলাই, ২০২৪
৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১

বিশ্বকাপ জিতে টি-টোয়েন্টিকে বিদায় বলে দিলেন কোহলি

বিশ্বকাপ জয়, নিজে ম্যাচসেরা- শেষটা এমন করে রাঙাতে পারেন ক’জনে? যারা পারেন তাদের একজন বিরাট কোহলি। হ্যাঁ, বিশ্বকাপ জিতে ম্যাচ সেরার পুরস্কার হাতে নিজের শেষ ঘোষণা করে দিলেন কোহলি। বিদায় বলে দিলেন আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিকে।

ওয়ানডে বিশ্বকাপের স্বাদ আগেই পেয়েছিলেন কোহলি, জিতেছেন চ্যাম্পিয়নস ট্রফিও। দীর্ঘ অপেক্ষার পর এবার প্রথমবারের মতো চুমু এঁকেছেন টি-টোয়েন্টি শিরোপায়। সেইসাথে নিজেও জিতেছেন ফাইনাল সেরার পুরস্কার। বিদায়ের জন্যে এরচেয়ে ভালো মঞ্চ আর কি হতে পারে?

১৭ বছর পর শনিবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতলো ভারত। ফাইনালে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়েছে মাত্র ৭ রানে। যেই জয়ে সামনে থেকেই নেতৃত্ব দেন কোহলি। মাত্র ৩৪ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকা দলকে ১৭৬ রানে পৌঁছান তিনি। যেখানে ৫৯ বলে ৭৬ রান আসে তার ব্যাটে।

এমন পারফরম্যান্সের জেরে বার্বাডোজের ফাইনাল এ ম্যাচে আগে ব্যাট করে ৬ উইকেটে ১৭৬ রান করে ভারত। জবাবে দারুণভাবে লড়াই করলেও শেষ দিকে অভাবনীয়ভাবে হেরে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। ম্যাচ সেরার পুরস্কার উঠে কোহলির হাতে।

সে পুরস্কার নিতে এসে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানেই কোহলি ঘোষণা দেন নিজের টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ার সমাপ্তির। তিনি বলেন, ‘এটা আমার শেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এবং এটি আমরা অর্জন করতে চেয়েছি। ভারতের হয়ে এটিই আমার শেষ টি-টোয়েন্টি। তাই সবটুকু কাজে লাগাতে চেয়েছি।’

ফাইনাল সেরা হলেও আগের ম্যাচগুলোতে মোটেও আলোতে ছিলেন না কোহলি। প্রথম সাত ম্যাচে করেন মাত্র ৭৫ রান। যেখানে বলও খেলেন সমান ৭৫। সব মিলিয়ে নিজেকে হারিয়ে খুঁজছিলেন তিনি। তবে আসল সময়েই জ্বলে উঠে তার ব্যাট।

এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘একদিন আপনার মনে হবে রানই করতে পারছেন না, তারপরে কিছু ঘটবে। ঈশ্বর মহান। যে দিন গুরুত্বপূর্ণ, সে দিন আমি দলের কাজটি করেছি।’

নিজের বিদায় ঘোষণা করে শুভ কামনা জানিয়ে যান পরবর্তী প্রজন্মকে। বলেন, “এই ট্রফিটা উঁচিয়ে ধরতে চেয়েছি ও পরিস্থিতিকে সম্মান জানাতে চেয়েছি। বিষয়টা ‘ওপেন সিক্রেট’ ছিল। এখন পরবর্তী প্রজন্মের দায়িত্ব নেয়ার পালা। দুর্দান্ত কিছু খেলোয়াড় দলকে এগিয়ে নেবে এবং পতাকা উঁচু করে ধরবে।”

২০১০ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি অভিষেক হওয়া কোহলি ক্যারিয়ারে খেলেছেন ১২৫ ম্যাচ। যেখানে করেছেন ৪১৮৮ রান। রোহিত শর্মার পর টি-টোয়েন্টিতে বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক তিনি। যেখানে তার গড় ৪৮.৬৯ গড় ও ১৩৭.০৪ স্ট্রাইক রেট। তাছাড়া কোহলি ভারতকে নেতৃত্ব দিয়েছেন ৫০টি ম্যাচে।

আরো খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

জনপ্রিয় খবর